বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

রহস্য আর সমৃদ্ধিতে ঘেরা আয়ারল্যান্ডের মেনলো ক্যাসল

বিএসএল নিউজ ডেস্ক: | আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০২০

সমৃদ্ধি ও বেদনার ইতিহাসের পাশাপাশি রহস্যময় আর লোককাহিনীতে ঘেরা এক ক্যাসেলের নাম- আয়ারল্যান্ডের মেনলো ক্যাসল। ব্লেক ক্যাসল নামেও যার ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে। ৪৫১ বছরের পুরানো ঐতিহাসিক সেই ক্যাসেলের সাথে মিশে থাকা অজানা কথাগুলোই তুলে ধরা হল প্রতিবেদনে।

গলওয়ের সবচেয়ে ধনী পরিবার ছিলো ব্লেক পরিবার। ১৫৬৯ সালে তারা করীব নদীর তীরে ম্যানলো ক্যাসল প্রতিষ্ঠা করেন। ১৬০০ সাল থেকে ১৯১০ সাল পর্যন্ত ব্লেক পরিবারই বাস করতেন এখানে।

ক্যাসেলের প্রবেশে শত শত বছরের পুরানো পথ ও গাছগুলো এখনো প্রকৃতিতে ইতিহাসের স্বাক্ষী হয়ে আছে। আলো- ছাঁয়ার পরিবর্তনের খেলায় গাছগুলো বার্ধক্যে পরলেও এখনো যেন চির যৌবনের রং ছড়িয়ে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে দর্শনার্থীদের।

এই মেনলো ক্যাসেলেই ১৬০০ শতাব্দীতে ঐতিহ্যবাহী ‌’মেইন ইন মেনলো’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করতো ব্লেক পরিবার।অনেক ধরনের খেলাধুলার পাশাপাশি সংগীত ও নৃত্যেরও আয়োজন থাকতো এখানে।

১৯১০ সালের ২৬ জুলাই স্যার ভ্যালেন্টাইন ব্লেক ও তার স্ত্রী লেডি ব্লেক ডাবলিন থেকে দূরে থাকা অবস্থায় মেনলোর এ ক্যাসেলটিতে আগুন লেগে তাদের শারীরিক প্রতিবন্ধী কন্যা ইলিয়েন ও দুই দাসী মারা যায়। সবার দেহ পেলেও কন্যা ইলিয়েনের দেহের সন্ধান আর পাওয়া যায়নি।

কালের স্বাক্ষী হয়ে এখনো দাঁড়িয়ে আছে মেনলো ক্যাসেলের অংশ বিশেষ, যার মাঝে রয়েছে অনেক আনন্দ ও বেদনার করুন এক ইতিহাস। এখনো যারা এখানে ভ্রমণে আসেন, ইলিয়েন নামের সেই কন্যার কথা স্মরণে তাকিয়ে থাকেন ক্যাসেলটির ধ্বংসাবশেষের দিকে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন