বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

কেজিতে ২০ টাকা বেড়েছে কাঁচা মরিচের দাম: মাছ-মাংস-সবজি স্থিতিশিল

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০২০

জিয়া উদ্দিন বাবু: সপ্তাহ শেষে বেড়েছে কাঁচা মরিচের দাম। প্রতি কেজি মরিচে ২০ টাকা বেড়ে বর্তমানে মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩২০ টাকা। তবে কিছু কিছু বাজারে ২৫০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে কাঁচা মরিচ। যা মানের দিক থেকে খারাপ বলে অভিযোগ ক্রেতাদের।

তবে কাঁচা মরিচ বাদে বাজারে আসা অধিকাংশ জিনিসপত্রের দাম গত সপ্তাহের ন্যায় স্থিতিশিল রয়েছে। শুক্রবার বরিশাল নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

নগরীর পোর্ট রোড, নতুন বাজার, চৌমাথা বাজার, বাংলা বাজার, সাগরদী, নথুল্লাবাদ নৈশকালীন বাজার এবং পুরান বাজারসহ অন্যান্য বাজার ঘুরে দেখা যায় প্রতি কেজি শশা এবং বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা, মূলা ৫০ কেজি, টমেটো ১শত টাকা, ঢেঁড়স ১শত টাকা, ঝিংগা ৪০ টাকা, আটিপ্রতি পুঁইশাক ৩৫-৪০ টাকা, লাল শাক ১৫-২০ টাকা, পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৮০-৯০ টাকা, আলু ৪৫-৫০ টাকা করে বিক্রি করা হয়েছে। যার মূল্য গত সপ্তাহের ন্যায় এ সপ্তাহের স্থিতিশিল রয়েছে।

এছাড়া আমড়ার কুড়ি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা দরে। ফারমের ডিম প্রতি হালি ৩৮ টাকা, হাঁসের ডিম ৭০ টাকা, মুরগীর ডিম ৬০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। পাশাপাশি ব্রয়লার মুরগী বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা সোনালী ১৮০ টাকা, লেয়ার বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকা, গরুর মাংস ৫৮০-৬০০, খাসি বিক্রি হয়েছে ৭৫০ টাকায়। যা গত সপ্তাহে একই দামে বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্যবসায়ীরা।

মাছের বাজারও স্থিতিশিল রয়েছে। তেলাপিয়া ও পাঙ্গাস মাছ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১২০ টাকায়। ছোট সাইজের ইলিশ ৩০০-৪০০ টাকা, বড় সাইজ অর্থাৎ এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হয়েছে ৮০০-১০০০ টাকা, রুই-কাতল ২৫০-৩০০ টাকা, কই, শিং প্রতি কেজি ২০০ টাকা, ছোট চিংড়ি ৩৫০ টাকা, বড় ৬০০ টাকা, পাবদা ২৪০- ৩০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন