সালিশ মিমাংশার সংবাদ প্রকাশের পর শিশু যৌন নিপিড়নকারী শ্রীঘরে

এ.এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০ ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ

বিএসএল নিউজে সংবাদ প্রকাশের পর আটক করা হয়েছে কলাপাড়ার মহিপুরে পঞ্চম শ্রেনীর শিশু ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাকারী দুই সন্তানের জনক। বুধবার (০১ এপ্রিল) বিকেলের দিকে তাকে মহিপুর থানা পুলিশ আটক করে।

আটককৃত অভিযুক্ত কামাল বেপারী ভিকটিম শিশুর প্রতিবেশী। এর আগে স্থানীয় ইউপি সদস্য’র মাধ্যমে সালিশ বৈঠকের ১০ বেত্রাঘাত ও ১০ হাজার টাকা ক্ষতিপুরণের বিনিময়ে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়।

বিষয়টি নিয়ে বিএসএল নিউজে সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনের টনক নড়ে যায়। এর পর পরই শেষ বিকেলে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত কামাল বেপারীকে আটক করে পুলিশ।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছিল। মহিপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান এই তথ্য জানিয়েছেন।

নির্যাতিত ওই ছাত্রীর পারিবারিক সূত্র জানায়, সোমবার শেষ বিকালে বাড়ির উঠানে খেলা করছিল ১১ বছর বয়সি ওই শিশু। এসময় সময় প্রতিবেশী কালাম বেপারী শিশুটিকে ঘরে ডেকে নিয়ে যৌন নিপিড়নের চেষ্টা চালায়।

এসময় শিশুটির ডাক চিকৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে অভিযুক্ত কালাম বেপারী দৌড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে মহিপুর সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবদুস সোহাবান সালিশ বৈঠকের নামে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করেন।

যা স্থানীয় সচেতন মহল সালিশ বৈঠকের দৃশ্য গোপনে মোবাইল ফোনে ভিডিও করে সোস্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে যায়। পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে সালিম বৈঠকের ছবি সম্বলিত একটি সংবাদ প্রকাশিত হয় বিএসএল নিউজে।

মহিপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ঘটনাটি জানতে পেরে অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। ভিকটিমের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি ছলছে।