কুয়াকাটায় এখনও কিস্তি তুলছে এনজিও কর্মীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক Tuesday, March 24th, 2020 6:59 pm

করোনাভাইরাস আতংকে সবকিছু বন্ধ ঘোষনা করলেও এখনও বন্ধ হয়নি পটুয়াখালীর কুয়াকাটার এনজিওর কার্যক্রম। মঙ্গলবার সকালে বে-সরকারি এনজিও আশা ব্যাংকের কর্মকর্তারা কুয়াকাটা পৌরসভার ইসলামপুর মহল্লার বিভিন্ন বাড়িতে ঘুরে কিস্তির টাকা তোলেন। এঘটনায় স্থানীয় অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ মার্চ পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক এনজিওর কিস্তি বন্ধ ঘোষনা করছেন। আশা ব্যাংকসহ কয়েকটি এনজিও এ নির্দেশনা না মেনে বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে ঘুরে টাকা তুলছেন।

কিস্তির টাকা পরিশোধে অনেকে অনিহা প্রকাশ করলে এনজিও কর্মীরা তাদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেছেন। নতুন করে লোন নিতে ঝামেলা হবে বলে এবিষয়ে নাম প্রকাশ করতে অনিহা প্রকাশ করেছেন অনেকে।

আশা ব্যাংকের মাঠ কর্মী জাহিদ হোসেন বলেন, আমাদের উপরের নির্দেশে মাঠে এসে কিস্তি নিচ্ছি যখন তারা নিষেধ করবে তখন আমরা আসবোনা।

আশা ব্যাংক কুয়াকাটা শাখার ম্যানেজার জহির উদ্দিন বলেন, লোন নিচ্ছেন কিস্তি দিবে এটাই তো নিয়ম। তবে সরকারী ভাবে এখন পর্যন্ত কিস্তি না নেয়ার ব্যাপরে কোন নির্দেশ পাইনি।

কলাপাড়া উপজেলা র্নিবাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, পরর্বতী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত সরকারী ভাবে এনজিওর কিস্তি তোলার ব্যাপরে সম্পূর্ন নিষেধ আছে। এ রকম অভিযোগ পেলে আইন আনুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।