করোনা দূর্যোগের সময় এক মুঠো চালের জন্য আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক Tuesday, March 24th, 2020 6:51 pm

আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সমস্ত প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার সরকারী ঘোষনার প্রেক্ষিতে শ্রমজিবী নগরবাসীর জন্য ফ্রি রেশনিং চালু করা সহ সরকারের প্রতি মোট ৬ টি দাবী উপস্থাপন করে এবং শ্রমজীবী গরীবদের রক্ষায় বাসদের কর্মসূচী জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় অশ্বিনীকুমার হলে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর জেলা শাখার আয়োজনে এই সংবাদ সম্মেলণ অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে সার্বিক বিষয়বস্তু সহ দাবীগুলো তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাসদের সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী।

এসময় তিনি বিস্তারিত লিখিত বক্তব্যে বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকার ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার ঘোষনা দিলেও শ্রমজীবী মানুষদের জন্য রেশনিং বা কোন প্রকার ব্যাবস্থাপনার নির্দেশনা দেয়নি। অথচ পাশের দেশ ভারতে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে সরকার শ্রমজীবী মানুষদের জন্য ২ টাকা কেজি দরে চাল দিচ্ছে।

মনীষা জানান, বরিশালে শিল্প কারখানা অত্যন্ত সীমিত। এখানে অবস্থিত শ্রমজীবী মানুষদের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ অপ্রাতিষ্ঠানিক শ্রমিক যারা দিন আনে দিন খায়। লকডাউনের সময় এদের পরিবার কিভাবে চলবে তা নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন বা সরকারের পক্ষ থেকে কোন ঘোষনা আসেনি।

এছারা করোনা নিয়ে কোন ব্যাবস্থাপনাই বরিশালে সরকারিভাবে ভালো পরিলক্ষীত হয়নি। সামগ্রিক প্রেক্ষাপটে অবিলম্বে মেনে নেয়ার নিমিত্বে ৬ টি দাবী উপস্থাপন করেন বাসদের সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী।

দাবীগুলো হল, ১. বরিশালের শ্রমজীবী নিম্মবিত্ত দরিদ্র মানুষদের জন্য অবিলম্বে ফ্রি রেশনিং এর মাধ্যমে এই দুর্যোগপূর্ন সময়ের জন্য চাল, ডাল, তেল, আলু, লবন ইত্যাদি নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। ২. সকল নাগরীকদের জন্য জীবানুনাশক তরল, মাস্ক বিনামূল্যে সরবরাহ করতে হবে।

৩. এই সময় সকল এনজিও ও ব্যাংক থেকে ঋনের কিস্তির টাকা মওকুফ করতে বিশেষ উদ্যোগ নিওেত হবে। ৪. শেরে-বাংলা মেডিকেল কলেজে করোনা ভাইরাস পরিক্ষার ব্যাবস্থা করতে হবে এবং আইসিইউ চালু করতে হবে। ৫. সকল চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তা সামগ্রী পিপিই সরবরাহ করতে হবে। ৬. প্রশাসনকে দায়িত্বশীল অভিভাবকের ভুমিকা পালন করতে হবে।

এসকল দাবী উপস্থাপন করে ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী শ্রমজীবী গরিবদের রক্ষায় বাসদের নতুন উদ্যোগ এর বিষয়ে বিস্তারিত জানান। ‘না খেয়ে একজন মানুষের মৃত্যু মানে আমাদের বিবেকের মৃত্যু’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বাসদের নতুন আন্দোলন ‘এক মুঠো চাল’।

এই উদ্যোগের মাধ্যমে প্রাথমিকভাবে এই দুর্যোগের সময় চাল সংগ্রহের জন্য ২ হাজার টি ব্যাগ বিভিন্ন বাসা বাড়িতে সরবরাহ করা হবে। এই ব্যাগে লেখা থাকবে ‘এই দুর্যোগে আসুন এক মুঠো খাবার কম খেয়ে আসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়াই; রান্নার পূর্বে অন্তত এক মুঠো চাল এই ব্যাগে রাখুন’। এই ইদ্যোগকে প্রচারের মাধ্যমে সারা দেশে ছরিয়ে দেয়ার আহবান জানান ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী।

সর্বশেষ কিছু তথ্য পূনরায় উপস্থাপন করে সংবাদ সম্মেলন শেষ করেন ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী। তা হল, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে কোন ধরনের আতংকিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হেল্প ডেস্ক এ যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়েছে। ২৪ ঘন্টা খোলা এই হেল্প ডেস্ক এর নাম্বার গুলো হল: ০১৫৭২-৩১৪০৮৫, ০১৭১১-২২৭৫১৯, ০১৭৬১-৭০৯৯৫৯, ০১৭২৮-৯৭০৫০৫ এবং ০১৭৯৪-৬৫২৭৩৪।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বাসদ বরিশাল জেলা আহবায়ক ইমরান হাবিব রুমন, বরিশাল রিক্সা-ভ্যান চালক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি দুলাল মল্লিক, সমাজতান্ত্রীক শ্রমিক ফ্রন্ট এর জাহাঙ্গীর হোসেন দিদার, সমাজতান্ত্রীক শ্রমিক ফ্রন্ট শহীদুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রীক মহিলা ফোরাম সহসভাপতি মাফিয়া বেগম এবং সমাজতান্ত্রীক ছাত্র ফ্রন্ট বরিশাল জেলা সদস্য সুজন আহমেদ।