হত্যার চেষ্টা: আসামী গ্রেফতার না হওয়া এলাকায় ক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯ ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার আজিজপুর গ্রামের পূর্ব বিরোধের জের ধরে মোবারক হোসেন (২৫) ও তার স্ত্রী আছমা আক্তার (২২)কে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্টার লুটপাট শ্লীলতাহানীর মামলার আসামি ফয়েজ আহম্মদ (৩৫), লালমতি (৫৫) বিবি কুলসুম (৩০) ও রাশেল (১৮) প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদেরক গ্রেফতার না করায় এলাকা জুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এজাহার সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার কাবিলপুর ইউপির আজিজপুর গ্রামের রোববার ২৭ অক্টোর দুপুরে পূর্ব বিরোধের জের ধরে ফয়েজ ও তার লোকজন একই বাড়ির মোবারক হোসেন ও তার স্ত্রীকে দেশীয় অস্ত্র দা,চেনী,কিরিছ ও লাঠি সোটা নিয়ে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা, শ্লীলতাহানি এবং লুটপাট করে। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান। এরপর মোবারক হোসেন বাদি হয়ে নোয়াখালী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় একটি মামলা করে। এরপর আদালতের নির্দেশে সেনবাগ থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত করে নিয়মিত মামলা ৪ নং তারিখ ৮/১১/১৯ রুজু করলেও আজ পর্যন্ত আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় পুরো এলাকাজুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মামলার বাদি মোবারক হোসেন জানায়, আসামি ফয়েজ আহম্মদ স্থানীয় আজিজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পিয়ন কাম নৈশ প্রহরী হিসাবে কর্মরত আছে। এবং সে নিয়মিত বিদ্যালয়ের হাজিরা খাতায় স্বাক্ষরও করলেও পুলিশ বলছে তাকে খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। তা হলে কি? সে বিদ্যালয়ে চাকুরি করছেনা। নাকি অন্যকেউ তার হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করছে। বিষয়টি সে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার অনুরোধ করছে।