সরকার বিএনপি-জামায়াতের উপর নির্যাতন করছে, বললেন বাকেরগঞ্জ আ’লীগ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক শুক্রবার, নভেম্বর ৮, ২০১৯ ১:৫৬ অপরাহ্ণ

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর মহসিন বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপি-জামায়াতের উপর পাষবিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে গিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের উঠান বৈঠককালে স্থানীয় কাকড়ধা হাইস্কুল মাঠে তিনি আওয়ামীলীগ সরকারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তোলেন।

সম্প্রতি এই বক্তব্যের অডিও ক্লিপ ফেইসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হলে গোটা উপজেলাজুড়ে তোলপাড় চলছে। বহুল বিতর্কিত এই আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগের অন্ত নেই। স্থানীয়রা বলছে- মীর মহসিন দীর্ঘদিন ধরেই দলের মধ্যে বিতর্ক সৃস্টিসহ অসাংগঠনিক কর্মকান্ডে জড়িত।

বাকেরগঞ্জের আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ১৯৯৬ সালে মীর মহসিন যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকাবস্থায় জাতীয় নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী মরহুম সৈয়দ মাসুদ রেজার চরম বিরোধীতা করেন। একইভাবে ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে মাসুদ রেজা মনোনয়ন পেলে আবারও তার বিরোধীতা করেন এবং পূর্বের ন্যায় স্বতন্ত্র প্রার্থী দাঁড় করিয়ে তার পক্ষে কাজ করেন।

২০১২ সালে মীর মহসিন চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চেয়ে ব্যর্থ হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ভোটের আশায় প্রকাশ্যে সরকারের সমালোচনা করেন। শুধু সমালোচনা করেই ক্ষ্যান্ত হননি। তিনি বিএনপি-জামায়াতের ভোট প্রাপ্তির আশায় তাদের উপর বর্তমান সরকার পাষবিক নির্যাতন করছেন বলে অভিযোগ করেন। সরকারের বিরুদ্ধে এই মিথ্যা অভিযোগ দেওয়ার পরপরই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সহ সাধারণ জনগনের তোপের মুখে পড়ে নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়িয়ে এলাকা ত্যাগ করেন মীর মহসিন।

এছাড়া মীর মহসিনের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মহিউদ্দিন হাওলাদার নামে এক ব্যাক্তির হত্যা মামলার এজহার ভুক্ত আসামী। অবশ্য পরে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে চার্জসিটে নাম অর্ন্তভূক্ত করতে দেয়নি মুখোশধারি এই আ.লীগ নেতা। দলের ভিতর বসে তার এই ধরনের অপকর্মের বিরুদ্ধে স্থানীয় নেতাকর্মীরা একাধীকবার জেলা ও উপজেলা নেতাদের অবহিত করলেও তার বিরুদ্ধে কোন ধরনের সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়নি আজ পর্যন্ত।

যার ফলে সে দিনের পর দিন আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে। আসন্ন আওয়ামীলীগের কাউন্সিল উপলক্ষে মীর মহসিন ফের দলের ভিতর বিভাজন সৃস্টি সহ আওয়ামীলীগকে বিতর্কিত করতে নানামুখি মিশনে নেমেছেন বলে অভিযোগ স্থানীয় নেতাকর্মীদের। তাই তারা আওয়ামীলীগের বিরোধীতাকারী মীর মহসিনের বিষয়ে দ্রুত সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে আওয়ামীলীগের শীর্ষ মহলের প্রতি জোড় দাবী জানিয়েছেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর মহসিনের বক্তব্য পাওয়া জায়নি।

বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া বলেন, অডিওটি আমরা পর্যালোচনা করে দেখবো। মীর মহসিন যদি সরকারের বিরুদ্ধে কোন বক্তব্য দিয়ে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনীক ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য জেলা আওয়ামীলীগের কাছে সুপারিশ পেশ কররো।

বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস বলেন, মীর মহসীনের অডিওর বিষয়টি খোজ খবর নেওয়া হবে। দলের বিরুদ্ধে যারা মিথ্যাচার করবে তাদের কঠোর শাস্তি পেতে হবে বলে জানান তিনি।