সন্তানের মৃত্যু: বাবার অভিযোগ হত্যা, মায়ের দাবি স্বাভাবিক

নিজস্ব প্রতিবেদক মঙ্গলবার, আগস্ট ১৩, ২০১৯ ৫:৫৪ অপরাহ্ণ

বরিশাল নগরীর কাউনিয়ায় পানিতে ডুবে আট বছর বয়সী এক শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শিশুর বাবা ও তার পরিবার এটিকে পরিকল্পিত হত্যা বলে অভিযোগ করেছেন। তবে তার মা বলছেন দুর্ঘটনা। সোমবার (১২ আগস্ট) ঈদের দিন বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে নগরীর উত্তর কাউনিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হওয়া শিশু আব্দুল্লাহ সিয়াম ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার কামদেবপুর গ্রামের আতাহার আলী খানের ছেলে। সিয়াম উত্তর কাউনিয়ায় তার গৃহপরিচারিকা মা আসমা বেগমের সাথে থাকতো।

সিয়ামের খালা মনি আক্তার জানান, দাম্পত্ত কলোহের কারনে আতাহার আলী খানের সাথে আসমা বেগমের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। পরে আসমা তার ছোট ছেলে সিয়ামকে নিয়ে ফারুক নামের এক ব্যক্তিকে বিয়ে করে কাউনিয়ায় এলাকায় বসবাস করে আসছিলো।

খালা মনি আক্তার বলেন, সোমবার ঘটনার সময় সিয়াম সহ স্থানীয় তিন শিশু বাড়ের পার্শ্ববর্তী পুকুরে গোসল করছিলো। একটু পরেই অপর দুই শিশু এসে সিয়াম পানিতে ডুবে যাওয়ার কথা জানায়। তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে আমি সহ কয়েকজন পুকুরে ডুবিয়ে  সিয়ামকে উদ্ধার করি। ততক্ষনে সিয়ামের মৃত্যু হয়।

তবে সিয়ামের বাবা আতাহার আলী খান অভিযোগ করেন, পরিকল্পিতভাবে তার সাবেক স্ত্রীর স্বামী ফারুক পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছে সিয়ামকে। যার সাথে সিয়ামের মাও জড়িত বলে অভিযোগ তার। এই ঘটনায় আইনী সহায়তার দাবী করেন তিনি।

বরিশাল মেট্রোপলিটন কাউনিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম কবির জানান, প্রাথমিকভাবে শিশুটির মৃত্যু নিয়ে পাল্টা পাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে। তাই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) শিশুটির ময়না তদন্ত করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

গোলাম কবির বলেন, আপাতত এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা নেয়া হয়েছে। তবে ময়না তদন্তের প্রতিবেদনে হত্যার প্রমান পাওয়া গেছে এই ঘটনায় হত্যা মামলা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।