রোগীর চাপ সামলাতে শেবাচিমে স্বতন্ত্র ডেঙ্গু ইউনিট চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক রবিবার, আগস্ট ১১, ২০১৯ ৭:৩২ অপরাহ্ণ

বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বতন্ত্র ডেঙ্গু ইউনিট চালু করা হয়েছে। আজ রোববার (১১ আগস্ট) সকাল থেকে হাসপাতালের চতুর্থ তলায় ওয়ার্ডটিতে চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু হয়।

মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধায়নে চালু হওয়া ডেঙ্গু ইউনিটে এক সাথে একশ রোগীকে ভর্তি রেখে চিকিৎসা প্রদান করা যাবে। প্রথম দিনেই হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধিন চারটি ইউনিটের ৭৯ জন নারী রোগীকে স্থানান্তর করা হয়েছে ইউনিটটিতে।

তবে পুরুষ ও শিশু রোগীদের পূর্বের জায়গাতেই চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। বাথরুম সল্পতার কারনে ডেঙ্গু ইউনিটটিতে মহিলাদের সাথে পুরুষ রোগী রাখা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. বাকির হোসেন।

এদিকে চালু হওয়া ডেঙ্গু ইউনিট শনিবার বিকালে পরিদর্শন করবেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্ণেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম-এমপি ও বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। এ সময় জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান, হাসপাতাল পরিচালক ডা. বাকির হোসেন সহ অন্যান্য চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রতিমন্ত্রী ও সিটি মেয়র হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রোগী ও তাদের চিকিৎসার পাশাপাশি বিভিন্ন সমস্যা সম্পর্কে খোঁজ খবর এবং তাৎক্ষনিকভাবে তা সমাধানের পরামর্শ দেন। এর আগে সকালে হাসপাতাল পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন পরিদর্শনে গিয়ে ওয়ার্ডটি’র কার্যক্রম শুরুর ঘোষনা দেন। সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন- উপ-পরিচালক ডাঃ আবদুর রাজ্জাক সহ মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ও নার্সরা।

পরিচালক বলেন, ওয়ার্ডটি সম্পূর্ণ নতুনভাবে সংস্কার করা হয়েছে। একশ রোগীকে ভর্তি রাখা ছাড়াও ওয়ার্ডটিতে চিকিৎসক ও নার্সদের জন্য আলাদা আলাদা ডিউটি রুম ও একটি হেল্প ডেস্ক রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রথমত নারী ও পুরুষ রোগীদের ওই একটি ইউনিটে ভর্তি রেখে চিকিৎসার পরিকল্পনা ছিলো। কিন্তু সমস্যা হয়েছে এটি পূর্বে থেকেই পুরুষ ওয়ার্ড। যে কারনে এখানে আপাতত একটি মাত্র বাথরুমের ব্যবস্থা রয়েছে। তাই পুরুষ বাদ দিয়ে শুধুমাত্র মহিলা রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ডেঙ্গু ইউনিটে।

পরিচালক আরো বলেন, ৫০০ শয্যার এই হাসপাতালকে ১ হাজার শয্যায় উন্নিত করা হয়েছে। কিন্তু প্রতিদিন রোগী থাকছেন ১৭শ থেকে ১৮ শত। যার মধ্যে শয্যা উন্নীত হলেও বাড়েনি জনবল বা অবকাঠামো। যে কারনে পাঁচশ শয্যার জনবল ও পুরানো ভবনেই রোগীর চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ কারনে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদাভাবে কোন ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, সংকটের মধ্যেও বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল¬াহ’র সহযোগীতায় স্বতন্ত্র ডেঙ্গু ইউনিটটি চালু করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় ৮০ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ৪৭ জন পুরুষ, ২১ জন নারী ও ১২ জন শিশু। সবমিলিয়ে বর্তমানে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৩১৪। তাছাড়া গত ১৬ আগষ্ট থেকে এ পযন্ত শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৭৮২ জন। এর মধ্যে মারাগেছে ৪ জন। চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৪৬৮ জন।