প্রধানমন্ত্রীর কাছে উন্নয়ন বঞ্চিত এক মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক শুক্রবার, আগস্ট ৯, ২০১৯ ১১:০১ অপরাহ্ণ

বর্তমান সরকারের আমলে শিক্ষার মান উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করায় দেশের শিক্ষাখাতে অনেক সাফল্য অর্জিত হয়েছে। বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার ১৪ নং নিয়ামতি ইউনিয়নের শেষ প্রান্তে অবস্থিত ডহরকোলা আহম্মাদিয়া দাখিল মাদ্রাসা। ১৯৮৬ সালে কিশোর কিশোরীদের শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে হাজী মাওলানা মোহাম্মদ রুহুল আমিন হাওলাদার (মাস্টার) পৈতৃক এক একর সম্পত্তির উপর মাদ্রাসা টি প্রতিষ্ঠা করেন।

৩৩ বছরে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি মাদ্রাসাটিতে বর্তমানে অত্যন্ত জরাজীর্ণ অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে। জরাজীর্ণ টিনের তৈরি দুটি টি ঘরে এ মাদ্রাসায় প্রায় ৩০০ জন ছাত্র /ছাত্রী – শিক্ষা গ্রহন করছে। মাঝে-মাঝে কাঠ ও টিন ভেঙ্গে পড়ে দুর্ঘটনা কবলিত হয় শিক্ষার্থীরা। ১৭ জন শিক্ষক কর্মচারী রয়েছেন এ মাদ্রাসাটিতে। প্রতিবছর শুনামের সহীত শতভাগ পাশ ফলাফল অর্জন করে আসছে এই মাদ্রাসার ছাত্র/ছাত্রীরা।

বিগত ৩৩ বছরে সরকারের পক্ষ থেকে নিয়ম অনুযায়ী যে বরাদ্দ রয়েছে তার তেমন কোন বরাদ্দ না পাওয়ায় মাদ্রাসাটি নানা সমস্যায় জর্জরিত। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্য বসার বেঞ্চ ও চেয়ার-টেবিল প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। দো’চালা ২-টি টিনের ঘর জরাজীর্ণ বিধায় বৃষ্টি আসলেই পানিতে ভিজতে হয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের। দরজা-জানালা সবই ভাঙ্গা। এই জনপদের উন্নয়নে এখন পর্যন্ত শুধু আশার কথা শোনা গেলেও বাস্তবে কোনো উন্নয়ন হয়নি।

কিশোর-কিশোরীদের শিক্ষা মাঝপথে হারিয়ে যাওয়া নয়, সফলতার জন্য তৈরি হওয়া একুশ শতকের জন্য ছেলে-মেয়েদের উপযুক্ত করে তুলতে মূলধারার ধর্মীয় শিক্ষা জীবনাভিজ্ঞতাভিত্তিক শিক্ষার ওপর জঙ্গিবাদ মাদক সেবন থেকে যৌন হয়রানি এবং বাল্যবিয়ের মত সংকটের মুখে পড়া বয়ঃসন্ধিকালীন ছেলে-মেয়েদের নিজের ওপর আস্থা তৈরি ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে সক্ষম করে তুলতে মাদ্রাসা শিক্ষা উন্নায়েনে মন্ত্রী মহদয়ের জোরদার করা দরকার। এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী , স্থানীয় এমপি মহোদয় ও সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছের মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ।