ছেলের দাপটে আবাসিক এলাকায় পিতার অবৈধ গরুর হাট

নিজস্ব প্রতিবেদক শুক্রবার, আগস্ট ৯, ২০১৯ ৯:৪২ অপরাহ্ণ

ছেলের দাপটে বরিশাল নগরীর অক্সফোর্ড মিশন সড়কে আবাসিক এলাকায় অবৈধ গরুর হাট বসিয়েছে সেলিম কশাই। গত কদিন ধরেই কোন প্রকার ইজারাবিহিন ২১ নম্বর ওয়ার্ডস্থ অক্সফোর্ড মিশন এলাকায় হাটটি পরিচালিত হয়ে আসছে। যা নিয়ে অনুমোদিত হাটের ইজারাদার ও এলাকাবাসি ক্ষুব্ধ হলেও নিরব দর্শকের ভূমিকায় রয়েছেন নগর কর্তৃপক্ষ।

নগর ভবন সূত্রে জানাগেছে, এবার সিটি এলাকায় দুটি স্থায়ী এবং চারটি অস্থায়ী সহ ৬টি হাটের ইজারা দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ। এর বাইরে অনুমোদনবিহিন কোন হাটের ইজারা না দেয়ার জন্য কঠোর নির্দেশনা রয়েছে নগর কর্তৃপক্ষের। কিন্তু সেই নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে অক্সফোর্ড মিশন সড়কে আবাসিক এলাকার মধ্যে হাট বসিয়েছেন সেলিম কশাই।

অভিযোগ উঠেছে, সেলিম কাশাই’র ছেলে ফয়েজ বেলালের সাথে সিটি মেয়র এর ঘনিষ্টতা রয়েছে। সেই ঘনিষ্টতাকে কাজে লাগিয়ে ফয়েজ বেলাল তার বাবা সেলিম কশাই’র মাধ্যমে অবৈধ ওই হাট বসিয়েছেন। যেখানে অর্ধশত’র মত গরু রেখে তা ভোক্তা পর্যায়ে বিক্রি করা হচ্ছে। যার দেখভাল করছেন ক্ষমতাসিন দলের স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি। যদিও অক্সফোর্ড মিশন রোডে দীর্ঘ বছর ধরেই সেলিম কশাই অবৈধভাবে কোরবানীর পশুর হাট বসিয়ে ব্যবসা করে আসছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

এদিকে ইজারার বাইরে অবৈধভাবে হাট বসলেও বিষয়টি নিয়ে যেন মাথা ব্যথা নেই নগর কর্তৃপক্ষের। যদিও সিটি কর্পোরেশনের হাটবাজার শাখা বিষয়টি অবগত হলেও তারা এ নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি। বরং মেয়র এর সাথে কথা বলার পরামর্শ দেন তারা।

জানতে চাইলে সেলিম কশাই বলেন, অবৈধভাবে নয়, বরং সিটি কর্পোরেশনকে অবহিত করেই এখানে গরু এনে রেখেছেন। তবে এটি কোন হাট নয়। এখানে গরু রেখে তা পরে হাটে নিয়ে বিক্রি করা হবে। এখান থেকে যদি কেউ গরু কিনতে চায় সে ক্ষেত্রে কোন বাধা নেই বলে জানান তিনি।

বিষয়টি নিয়ে বিসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইসরাইল হোসেন বিষ্ময় প্রকাশ করলেও কোন বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তাছাড়া অবৈধ হাটের বিষয়ে মেয়র বক্তব্য জানা যায়নি।