ইন্দুরকানী উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি নিয়ে বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক রবিবার, জুলাই ২৮, ২০১৯ ৫:১৮ পূর্বাহ্ণ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি বিলুপ্ত না করে নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করায় বিতর্ক সৃস্টি হয়েছে। এ বিতর্ক শেষ পর্যন্ত উপজেলা ও জেলা থেকে শুরু করে কেন্দ্র পর্যন্ত গড়িয়েছে। সদ্য ঘোষিত নতুন আহবায়ক কমিটির অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে যেমন ব্যস্ত নবগঠিত কমিটির নেতৃবৃন্দ তেমনি আগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি বহাল রাখতে চলছে অপর গ্রুপের রশি টানাটানি। উক্ত কমিটি নিয়ে জেলা ও কেন্দ্রে দুই গ্রুপের নেতৃবৃন্দের দৌঁড়ঝাপ অব্যাহত রয়েছে।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ১লা ফেব্রুয়ারী মাহামুদুর রহমান সোহেলকে সভাপতি ও আব্দুল্লাহ আল-মামুনকে সাধারন সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিস্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। কিন্তু পুরনো কমিটি বিলুপ্ত না করে জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক সফিউল হক মিঠু স্বাক্ষরিত চলতি মাসের ১৪ জুলাই বালিপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সহিদুল ইসলাম হাওলাদারকে আহবায়ক করে ৩ মাসের মেয়াদে ৩১ সদস্য বিশিস্ট একটি নতুন আহবায়ক কমিটি ঘোষনা দেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঐ কমিটি ভাইরাল হওয়ায় পরে বিতর্ক দেখা দেয়।

এদিকে নতুন আহবায়ক কমিটি গঠনের বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর পূর্ণাঙ্গ কমিটির সভাপতি, সাধারন সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক কেন্দ্রীয় সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা আবু কাওসার এবং সাধারন সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ এর সাথে স্বাক্ষাত করে বিষয়টি তাদের অবহিত করেন। পরে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ স্বাক্ষরিত গত ১৭ জুলাই উক্ত কমিটি কেন্দ্রের নির্দেশনা ব্যাতিত না ভাঙ্গার নির্দেশ দেন পিরোজপুর জেলা আহবায়ককে। কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী পিরোজপুর জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ন-আহবায়ক আক্তারুজ্জামান মানিক এবং মোঃ শহিদ সিকদার কমিটির ঐ কাগজে কেন্দ্রের নির্দেশে গত ২৫ জুলাই সোহেল-মামুনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি বহাল রাখার ব্যাপারে স্বাক্ষর করেন।

এদিকে শনিবার সেচ্ছাসেবক লীগের ২৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীও পৃথক ভাবে পালন করে নতুন এবং পুরনো কমিটির নেতৃবৃন্দ।উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের নবগঠিত কমিটির আহবায়ক সহিদুল ইসলাম বলেন, পূর্বের কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় নতুন আহবায়ক কমিটি দিয়েছে জেলা নেতৃবৃন্দ।

অপরদিকে উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির সভাপতি মাহামুদুর রহমান সোহেল বলেন, নতুন আহবায়ক কমিটির বিষয়ে আমারা আগে কিছুই জানতে পারিনি। ফেসবুকের মাধ্যমে আমরা এ কমিটির বিষয়ে অবহিত হয়েছি। আমাদের কমিটি বিলুপ্ত না করে কিভাবে নতুন কমিটি করা হল ? কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের দুজন যুগ্ন-আহবায়ক আমাদের পূর্বের কমিটি বহাল রাখার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে পিরোজপুর জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ন-আহবায়ক শহিদ সিকদার প্রতিবেদককে জানান, আমাদের যুগ্ন-আহবায়কদের কারো সাথে কোন আলোচনা না করে জেলা কমিটির আহবায়ক ইন্দুরকানী উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের একটি নতুন আহবায়ক কমিটি দিয়েছেন। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সোহেল-মামুনের আগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি বহাল রাখার নির্দেশনা দেয়ায় উক্ত কমিটি বহাল রাখার বিষয়ে তিনি একমত পোষন করেন বলে জানিয়েছেন।