হিজলায় লঞ্চে উঠতে গিয়ে নদীতে পড়ে পা ভাঙল দুই যাত্রীর

সেলিম আহমেদ, হিজলা বুধবার, অক্টোবর ৯, ২০১৯

বরিশালের হিজলায় তড়াহুড়ো করে লঞ্চে উঠতে গিয়ে নদীতে পড়ে দুই যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় তাদের দু’জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত যাত্রীরা হলো- হিজলার গৌরবদী ইউনিয়নের চর কুশুরীয়া গ্রামের বাসিন্দা মাছ ধরা জেলে হযরত আলী খাঁ (৫৫) ও একই উপজেলার চর মেমানিয়া গ্রামের রহিম গাজীর ছেলে মনির হোসেন গাজী (৩২)। এদের মধ্যে হযরত আলী খাঁ’র দু’পা ভেঙে গেছে।

বুধবার (০৯ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার হিজলা লঞ্চঘাটে ঢাকা-ভাষানচর রুটের এমভি রাজহংস-৮ লঞ্চে এই ঘটনা ঘটে। লঞ্চটির সুপারভাইজার এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তবে অভিযোগ উঠেছে লঞ্চে উঠতে গিয়ে নয়, বরং লঞ্চটি ভেরার সময় পন্টুনে সজোরে ধাক্কা লাগায় লঞ্চের অপেক্ষায় থাকা ওই দুই যাত্রী নদীতে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছে। অবশ্য এমন অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি লঞ্চ সুপারভাইজারের।

তিনি জানান, ‘ভাষানচর হয়ে ঢাকা যাওয়ার পথে রাজহংস-৮ লঞ্চটি হিজলা লঞ্চ ঘাটে নোঙর করে যাত্রী তোলা হয়। লঞ্চটি পন্টুনে বার্দিং করার আগেই কিছু যাত্রী তাড়াহুড়ো করে ওঠার চেষ্টা করে। তখন দুই যাত্রী নদীতে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন, ‘লঞ্চঘাটে পন্টুনের ব্যবস্থা থাকলেও সেখানে লঞ্চে ওঠার সিঁড়ির ব্যবস্থা। এ কারনে প্রায়শই এমন ঘটনা ঘটছে। কিন্তু পন্টুনের উন্নয়নে বন্দর কর্তৃপক্ষের কোন উদ্যোগ নেই।