শ্বশুরের শত্রু দমনে জেলা ছাত্রলীগ নেতা রাজীব গ্রুপের তান্ডব !

নিজস্ব প্রতিবেদক মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯

বরিশালঃ বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের গজালিয়া গ্রামে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে একটি বসত ঘরে তান্ডব চালিয়ে ফের আলোচনায় উঠে এসেছে বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের বিতর্কিত সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব হোসেন খান।

তার নেতৃত্বে ৪০/৫০ জনের একদল সন্ত্রাসী ফিল্মি স্টাইলে ফারুক হোসেন তালুকদারের বসতবাড়ীতে তান্ডব চালিয়ে হামলা ও ভাংচুর করেছে। খবর পেয়ে এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও রাজীব বাহিনীর বিরুদ্ধে নেয়নি প্রশাসনিক কোন ব্যবস্থা।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের গজালিয়া গ্রামের মৃত. জব্বার হোসেন তালুকদারের পুত্র ফারুক তালুকদারের সম্পর্কে চাচাতো ভাই নূর মোহাম্মদ তালুকদারের সাথে গাছ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ৮ সেপ্টেম্বর রবিবার সন্ধার পরে নূর মোহাম্মদ তালুকদার এর মেয়ে জামাই, জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীব হোসেন খানের নেতৃত্বে বরিশাল থেকে আসা ৪ জন লাঠি-সোঠা নিয়ে ফিল্মি স্টাইলে ফারুক হোসেন তালুকদারের বসতবাড়ীতে হামলা চালায়।
এ সময় ঘর তালাবদ্ধ পেয়ে ঘরের তালা ভেঙ্গে মালামাল ভাংচুর করে। এবং ফারুক তালুকদার মারার জন্য প্রতিটি বাড়ীর প্রতিটি ঘরে তল্লাশী করেন। তাকে না পেয়ে শোকেসে থাকা স্বর্ণের হাড়, আংটি, ১টি স্মার্ট ফোন ও নগদ ৪৫ হাজার লুট করে সন্ত্রাসীরা।

খবর পেয়ে এয়ারপোর্ট থানার এস আই রাজ্জাক ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এস আই রাজ্জাক বলেন, বসতবাড়ীতে হামলার এ ঘটনা অত্যান্ত দুঃখ-জনক। তাৎক্ষনিকভাবে অত্র সংশিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার মানিক তালুকদার ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং ঘটনার সত্যতা যাচাই করেন।

এ বিষয়ে মাধবাপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বলেন-ঘটনা আমি শুনেছি। জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজীবের এ ঘটনায় জড়ানো মোটেও উচিত হয়নি। এতে ছাত্রলীগের আর্দশ ক্ষুন্ন হয়েছে। আমি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই । এ ব্যাপারে এয়ারপোর্ট থানায় মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।