রাজনীতির পথ ধরেই অর্থনীতিতে দুর্বৃত্তায়ন হয়েছে— মেনন

নিজস্ব প্রতিবেদক রবিবার, অক্টোবর ৬, ২০১৯

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান রাশেদ খান মেনন-এমপি বলেছেন, ‘৭৫-এর পরবর্তী সময়ে এদেশের রাজনীতিতে যে দুর্বৃত্তায়ন শুরু হয়েছিল তা আর থামেনি। রাজনীতির সেই দুর্বৃত্তায়নের পথ ধরেই এখন অর্থনীতিতেও দুর্বৃত্তায়ন হয়েছে।

দেশের অর্থনীতি নিয়ন্ত্রণকারী দুর্বৃত্তরা আজ চরম শক্তিশালী ও বেপরোয়া। রাষ্ট্রের কৃষক-শ্রমিক-মেহনতি জনতার সম্পদ লুণ্ঠন করে তারা সম্পদের পাহাড় গড়েছে। মাত্র দুই পার্সেন্ট লুটেরাদের হাতে আজ রাষ্ট্রের সিংহভাগ সম্পদ।

রোববার (০৬ অক্টোবর) ওয়ার্কার্স পার্টি বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রাশেদ খান মেনন এসব কথা বলেন।

উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক টি.এম শাহজাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে রাশেদ খান মেনন-এমপি আরো বলেন, ‘বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতিবাজ-লুটেরাদের বিরুদ্ধে যে অভিযান শুরু করেছেন তা অব্যাহত রাখতে হবে। সকল ক্ষেত্রেই এ ধরনের শুদ্ধি অভিযান চালাতে হবে। ওয়ার্কার্স পার্টি একটি আদর্শিক সংগঠন। তাই ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীদের সবসময় এসব দুর্নীতিবাজ-লুটেরাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকতে আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও বরিশাল জেলার সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নিলু, বরিশাল-৩ আসনের সাবেক এমপি এবং ওয়ার্কার্স পাটি জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ মো. টিপু সুলতান ও বিকল্প সদস্য আবদুল খালেক।

এছাড়া সম্মেলনে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুদ্ধকালীন বেইজ কমান্ডার বীর প্রতীক রতন আলী শরীফ ও বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মোতালেব হাওলাদার।

উপজেলা কৃষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক গোলাম হোসেন এবং যুবমৈত্রীর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহিন হোসেনের সঞ্চালনায় সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ছাত্রমেত্রীর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সুজন আহমেদ, শামিম শাহরোখ তমাল, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মোজাম্মেল হক ফিরোজ, শান্তি দাস, উপজেলা যুবমেত্রীর সভাপতি আলাউদ্দিন খান, ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক হাসানুর রহমান পান্নু, আনোয়ার হোসেন মাস্টার, মতিউর রহমান কালু, শহিদ হাওলাদার, রবীন বৈদ্য, রাজা দিলীপ কুমার রায় প্রমুখ।