বাকেরগঞ্জের অপহরনকারী জুয়েলের কারাদন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক বুধবার, অক্টোবর ৯, ২০১৯

বরিশালের বাকেরগঞ্জে ৮ম শ্রেনীর ছাত্রীকে অপহরনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অপহরনকারীকে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়াও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের দন্ড দেয়া হয়েছে।

বুধবার এ দন্ড দেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু শামীম আজাদ। রায় ঘোষনার সময় অপহরনকারী জুয়েল হাওলাদার আদালতে উপস্থিত ছিলো। সে বাকেরগঞ্জ দুধল গ্রামের বাসিন্দা আব্দুর সত্তার হাওলাদারের ছেলে।

আদালত সূত্র জানায়, অপহৃতা মুন্নি বেগম ৮ম শ্রেনীতে পড়াশুনা করতো। স্কুলের যাওয়া আসার পথে জুয়েল তাকে প্রায়ই উত্যক্ত করতো। এতে প্রতিবাদ করায় ২০০৯ সালের ২২ ডিসেম্বর রাত ৩ টায় মুন্নি প্রকৃতির ডাকে সারা দিতে বের হলে তাকে অচেতন করে অপহরন করে।

এ ঘটনায় মুন্নি বাবা মোতালেব হাওলাদার বাদী হয়ে পরের দিন জুয়েল সহ ৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা করে। ২০১০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী জুয়েলকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট জমা দেয় বাকেরগঞ্জ থানার এসআই ইউনুছ আলী। মামলায় ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষে বিচারক ওই দন্ডাদেশ দেন।