প্রেমিকাকে ধর্ষণে অভিযুক্ত প্রেমিকের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় অভিযুক্ত ধর্ষককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো দুই বছরের সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়।

আজ রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) বরিশালের নারী ও শিশু নির্যতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু শামীশ আজাদ আসামীর উপস্থিতিতে এই দন্ডাদেশ দেন।

দন্ডিত আসামী বেল্লাল হোসেন মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরলতা গ্রামের বাসিন্দা হারুন হাওলাদারের ছেলে। পেশায় তিনি একজন মনোহরি ব্যবসায়ী।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান জানান, ‘স্কুল ছাত্রীর সাথে আসামী বেল্লাল এর সাথে দুই বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। সেই সম্পর্কের সূত্র ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে।

সর্বশেষ ২০১৩ সালের ৯ সেপ্টেম্বর ওই ছাত্রীর সাথে পুনরায় শারীরিক সম্পর্ক করতে গেলে ছাত্রী’র মা দেখে ফেলে। এসময় দু-একদিনের মধ্যে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে পালিয়ে যায় বেল্লাল।

এই ঘটনায় একই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর ভিকটিম বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় মেহেন্দিগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক অসীম কুমার সিকদার একই বছরের ১২ অক্টোবর আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

এর পর ২০১৫ সালের ২৩ মার্চ একমাত্র আসামী বেল্লাল হোসেন এর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলায় সাত জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহন শেষে বিচারক ওই দন্ডাদেশ দেন।