এমপি রুবিনা মীরাকে ঘিরে স্বপ্ন বুনছে সাধারণ মানুষ

শাকিল মাহমুদ বাচ্চু, উজিরপুর শুক্রবার, অক্টোবর ৪, ২০১৯

জাতীয় সংসদের নারী সদস্য সৈয়দা রুবিনা-এমপি। যিনি শুধু একটি মানই নন, নিজ জনপ্রিয়তায় ধীরে ধীরে একটি প্রতিষ্ঠানে রূপ নিচ্ছেন। তাইতো তাকে নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছেন উজিরপুর ও বানারীপাড়ার মানুষ। তিনি (রুবিনা মীরা ) এমপি হিসাবে শপথ নিয়ে উজিরপুর, বানারীপাড়া দু’উপজেলার অসহায় মানুষের কাছে যাচ্ছেন। তাদের সুখ দুঃখের কথা শুনে সাহাজ্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে একজন মানুষের প্রকৃত বন্ধু হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছেন।

সম্প্রতিক সমায়ে ডেঙ্গুজরে আক্রান্তদের পাশে দাড়ানো ও রোগ সম্পর্কে সাধারন মানুষকে সচেতন করতে রুবিনা আক্তার মীরা এমপি’র উদ্যোগকে সবশ্রেনীর মানুষ প্রশংসাভরে স্বগত জানান। বিশেষ করে কোথাও কোন মানুষের বিপদ আপদ বা দূঘটনা হলেই সংসদ সদস্য সৈয়দা রুবিনা আক্তার মীরা কিংবা তার প্রতিনিধি সেখানে উপস্তিত হন কোন না কোন সহয়াতা নিয়ে ।

এসব কারনে প্রথম বারের মত এমপি নির্বাচিত রুবিনা মীরা সব শ্রেনী পেশার মানুষের কাছে পছন্দের ব্যক্তিতে পরিনত হয়েছেন অতি অল্প সময়ের মধ্যে। এলাকার উন্নায়নেও তিনি বেশ সচেতন। দায়িত্ব পালনের মাত্র ৬ মাসেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে বানারীপাড়া ও উজিরপুরের নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেছেন।

নিজের চেষ্টায় করেছেন বেশ কিছু উন্নায়ন কাজ করেছেন। তার কাছে মানুষ যেকোন সমস্যা নিয়ে হাজির হতে পারেন কোন মাধ্যম ছাড়াই। রাত-দিন যে কোন সময় সমস্যা নিয়ে হাজির হওয়া মানুষকে সঠিক পথ দেখানো বা সাহাজ্যের হাত বাড়িয়ে দিতে নিচ্ছেন না সময়।

কিন্তু তার এই সফলতা এবং জনপ্রিয়াতা যেন সহ্য করতে পারছে না কু-চক্রি মহল। তাইতো তার বিরুদ্ধে করা হচ্ছে অপপ্রচার। আর এতে ব্যবহার করা হচ্ছে গণমাধ্যমকে। রুবিনার সুনাম নষ্ট করার জন্য ভীত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করাচ্ছেন দুষ্ট চক্রটি। আবার ছাপিয়েছেন মনগড়া প্রতিবাদও।

তবে রুবিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের রুখে দিতে নিঃস্বার্থে একাট্টা হচ্ছেন দুই উপজেলার সাধারন মানুষ। তাদের অভিমত রুবিনা একজন সৎ ও নীতিবান পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক কর্মী। সে রাজপথে লড়াই করে তৃনমূল থেকে উঠে এসে আজ একজন সংসদ সদস্য। তার সততায় মানুষ মুগ্ধ। যে মানুষের ভালবাসা সিগ্ধ হয় তাকে কেউ পরাজিত করতে পারবে না, এটাই চিরসত্য।

শোলক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী হুমায়ন কবির বলেন, রুবিনা মীরা একজন ভাল মানুষ। সে নীতিবান, তার মতো দক্ষ নারী নেতৃত্ব সৃষ্টি হওয়া অনেকটা বিড়ল। তার মত নেতৃত্ব আছে বলেই মানুষ এখনো রাজনীতিতে এগিয়ে আসছে।

জেলা পরিষদ সদস্য উজিরপুর উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি উর্মিলা বাড়ৈ বলেন, রুবিনা আক্তার মীরা একজন সৎ ও দক্ষ সংগঠক তার ভালবাসায় আমাদের এলাকার মানুষ মুগ্ধ। সে জনগণের মন জয় করেছে অল্প সময়য়ের মধ্যে।