শেবাচিমে ডেঙ্গু জ্বরে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু: চিকিৎসাধিন ২১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক সোমবার, আগস্ট ১৯, ২০১৯

বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত সুমাইয়া আক্তার (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রলীর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুর ২টায় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) তে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মৃত সুমাইয়া পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলা সদরের বাসিন্দা ও দুমাকী জনতা কলেজের অধ্যাপক ফজলুল হক এর মেয়ে এবং একই কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।

এদিকে সুমাইয়া সহ এ পর্যন্ত শেবাচিম হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী রোগীর সংখ্যা দাড়িয়েছে ৪ জনে। এছাড়া বরিশাল বিভাগে ডেঙ্গু জ¦রে মৃত্যু রোগীর সংখ্যা ৬ জন।

তথ্য নিশ্চিত করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, সুমাইয়া আক্তার নামের ওই ছাত্রী নিজ বাড়িতে বসে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়। পরে গত ১৬ আগস্ট তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি করা হয়।

পরিচালক বলেন, চিকিৎসাধিন অবস্থায় সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে সুমাইয়া শকে চলে যায়। এজন্য দ্রুত তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। এর দেড় ঘন্টার মাথায় আইসিইউতে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সুমাইয়ার মৃত্যু হয়।

পরিচালক জানান, বর্তমানে শেবাচিম হাসপাতালে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ২১৮ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধিন রয়েছেন। এদের মধ্যে রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ৬৫ জন এবং সোমবার সকাল ৮টা হতে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ২৯ জন রোগী ভর্তি হয়েছে।

এর আগে রোববার ভর্তি রোগীর সংখ্যা ছিলো ১৮৬ জন। ওইদিন ২৪ ঘন্টায় ভর্তি রোগীর সংখ্যা ছিলো ৪৩ জন। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হওয়া রোগীদের মধ্যে পুরুষ ৩৩, মহিলা ২৫ ও শিশু ৭ জন।

পরিচালক ডা. বাকির হোসেন আরো বলেন, গত ১৬ জুলাই থেকে এ পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৩০৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী এই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। যার মধ্যে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১০৯১ জন। যার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে মোট ৪ জনের।